আপেলের উপকারিতা এবং পুষ্টি গুনাগুন

আপেল খুবই সুস্বাদু এবং পুষ্টিকর একটি ফল। আপেল কম বেশি প্রায় সকলের কাছেই খুবই পছন্দের। আপনি সুস্বাদু হওয়ার পাশাপাশি পুষ্টিগুণের দিক থেকে খুবই প্রশংসনীয়। আপেল কমবেশি সব বয়সের মানুষের কাছে  অত্যন্ত পছন্দের একটি  ফল।

আপেলের উপকারিতা এবং পুষ্টি গুনাগুন


এছাড়াও আপেলের রয়েছে অগণিত রোগের উপকারিতা। আপেল আমাদের শরীরের প্রতিরোধ  ক্ষমতা বাড়াতে সহায়তা করে।

আরো পড়ুন….

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণের জন্য আপেল

ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য  আপেল খুবই উপকারী। আপেলের রয়েছে ফাইবার আমাদের রক্তের শর্করা নিয়ন্ত্রণে রাখতে সহায়তা করে। ফলে সহজেই ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব।

হার্ট ভালো রাখতে আপেল

নিয়মিত আপেল খেলে হার্ট ভালো থাকে।  এছাড়াও হার্টের রোগীদের জন্য আপেল খুবই উপকারী। আপেল আমাদের শরীরের রক্ত চলাচল স্বাভাবিক রাখার পাশাপাশি আমাদের হার্টের রক্ত চলাচল স্বাভাবিক রাখে এতে সহজেই আমাদের হার্ট ভালো থাকে।

ক্যান্সার নিয়ন্ত্রণের জন্য আপেল

ক্যান্সার নিয়ন্ত্রণের জন্য এবং প্রতিরোধের জন্য আপেল গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। আপেল অনেক ধরনের ক্যান্সার প্রতিরোধ করতে সহায়তা করে। আপেল আমাদের দেহের ক্যান্সার এর কোষ বৃদ্ধিতে বাধা সৃষ্টি করে। ফলে ক্যান্সারের ঝুঁকি অনেকটাই কমে যায়।

কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে রাখতে আপেল

আপেল আমাদের দেহের খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে। এতে হৃদরোগের ঝুঁকি অনেকটাই কমে যায়। এইজন্য যারা হৃদরোগের ভুগছেন তাদের জন্য আপেল অত্যন্ত উপকারী।

ওজন কমাতে আপেল

অতিরিক্ত ওজন আমাদের শরীরের জন্য খুবই ক্ষতিকর তা আমরা কম বেশি সবাই জানি। আপেল আমাদের দেহের ওজন নিয়ন্ত্রণে  সহায়তা করে। ফলে অনেক ধরনের রোগের ঝুঁকি অনায়াসে কমে যায়। আপেল আমাদের  দেহের ওজন কমাতে সহায়তা করে এবং ওজন বৃদ্ধিতে বাধা সৃষ্টি করে।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে আপেল

আপেল আমাদের দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সহায়তা করে।  নিয়মিত আপেল খেলে সহজেই অনেক বড় ধরনের রোগের ঝুঁকি কমে যায়। তাই সুস্থ থাকার জন্য অবশ্যই নিয়মিত আপেল খাওয়া প্রয়োজন।

হাড় মজবুত রাখতে আপেল

আপেল মজবুত করতে সহায়তা করার পাশাপাশি হাড়ের অনেক ধরনের রোগ প্রতিরোধ করে থাকে।  নিয়মিত আপেল খেলে আমাদের হাড়ের অনেক দূর হয়ে যায় এবং হার্ট সুস্থ এবং মজবুত রাখতে সহায়তা করে।

লিভার ভালো রাখলে আপেল

লিভার আমাদের শরীরের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ। এজন্য অবশ্য আমাদের লিভার ভালো রাখা প্রয়োজন। লিভার ভালো রাখতে আপেল এর গুরুত্ব অপরিসীম। নিয়মিত আপেল খেলে সহজেই আমাদের লিভার ভালো থাকে। তাই লিভার ভালো রাখার ক্ষেত্রে আপেল খেতে কখনোই অলসতা করবেন না।

আরো পড়ুন..

স্ট্রোকের ঝুঁকি কমাতে আপেল

আপেল স্ট্রোকের ঝুঁকি কমাতে অত্যন্ত  গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। যাদের স্ট্রোকের ঝুঁকি রয়েছে  তাদের জন্য আপেল খুবই উপকারী।  আপেলে থাকা বিভিন্ন পুষ্টি উপাদান স্ট্রোকের ঝুঁকি কমাতে সহায়তা করে।

আরো পড়ুন…….

দাঁত সাদা রাখতে আপেল

অনেকেরই দাঁত হলুদ এক্ষেত্রে আপেল দাঁত সাদা রাখার একটি অন্যতম সমাধান। আপেল আমাদের দাঁত সাদা রাখতে  অত্যন্ত  সহায়তা করে।  আপনি রয়েছে অনেক ধরনের পুষ্টিগুণ যা আমাদের জাতির জন্য খুবই উপকারী। আমাদের দাঁত শক্ত এবং মজবুত রাখতে সহায়তা করে। নিয়মিত আপেল খেলে আমাদের দাঁতের মাড়ি শক্ত হয় এবং অনেক ধরনের রোগ থেকে সহজেই রক্ষা পায় এবং রোগ মুক্ত থাকে।

এছাড়াও আপেলে আরও অনেক গুণাগুণ  রয়েছে। তাই সুস্থ থাকতে হলে অবশ্যই নিয়মিত উচিত আমাদের আপেল খাওয়া উচিত আপেল আমাদের অনেক ধরনের রোগ থেকে মুক্ত রাখতে এবং প্রতিরোধ করতে সহায়তা করে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *