নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারি শিক্ষক নিয়োগ লিখিত পরীক্ষার সময়সূচি ২০২২

সম্মানিত ভিজিটরস আপনাদের কে স্বাগত । এবারে প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারি শিক্ষক নিয়োগ এর লিখিত পরীক্ষা ২২ এপ্রিল 2022 থেকে শুরু হচ্ছে বলে নিশ্চিত খবর জানিয়েছে র্বোড কতৃপক্ষ । ১ম ধাপে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ২২ জেলার নিয়োগ পরীক্ষা । আরো জানা গেছে এইবার জেলা পর্যায়ে এসব নিয়োগের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে ।

প্রথমে ঢাকায় কেন্দ্রীয়ভাবে প্রাথমিকের নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠানের কথা বলা হলেও্, এখন জেলা সদরে পরীক্ষা অনুষ্ঠানের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

2022 সালের প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারি শিক্ষক পদে নিয়োগ পরীক্ষার সময়সূচি:

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ২২ অনুষ্ঠিত এপ্রিল 2022 খ্রি. তারিখ থেকে শুরু হবে বলে নিশ্চিত খবর পাওয়া গেছে।

করোনা মহামারীর কারনে স্থগিত প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা-২০২০ এর লিখিত পরীক্ষা আগামী ২২ এপ্রিল অনুষ্ঠিত হবে। এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবএ সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১২ টা পর্যন্ত ।

বুধবার (৬ এপ্রিল) প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের যুগ্ম সচিব, পরিচালক (পলিসি ও অপারেশন) মনীষ চাকমা এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে, তার স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

উক্ত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা-২০২০ এর লিখিত পরীক্ষা আগামী ২২ এপ্রিল, ২০২২ তারিখ সকাল ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত জেলা পর্যায়ে অনুষ্ঠিত হবে। লিখিত পরীক্ষা অংশগ্রহণের সার্বিক প্রস্তুতি নেওয়ার জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।

আরও জানা গেছে, প্রাথমিকের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা-২০২০ এর প্রথম ধাপে ২২টি জেলায় একসাথে এই লিখিত পরীক্ষাটি অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে ১৪টির সব উপজেলা এবং ৮টি জেলার কয়েকটি উপজেলার পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

যেসব জেলা ও উপজেলায় প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে

২২ এপ্রিল ২০২২ . তারিখ সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১২ টা পর্যন্ত যেসব জেলা ও উপজেলায় পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে-

চাঁপাইনবাবগঞ্জ, মাগুরা, শেরপুর, গাজীপুর, নরসিংদী, মানিকগঞ্জ, ঢাকা, মাদারীপুর, মুন্সিগঞ্জ, লক্ষ্মীপুর, ফেনী, চট্টগ্রাম, মৌলভীবাজার, লালমনিরহাট জেলার সব উপজেলার লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

সিরাজগঞ্জ জেলার উল্লাপাড়া, বেলকুচি, চৌহালী, কামারখন্দ, কাজীপুর; যশোর জেলার ঝিকরগাছা, কেশবপুর, মনিরামপুর, শার্শা; ময়মনসিংহ জেলার ভালুকা, ধোবাউড়া, ফুলবাড়িয়া, গফরগাঁও, গৌরীপুর, হালুয়াঘাট, ঈশ্বরগঞ্জ।

নেত্রকোনা জেলার আটপাড়া, বারহাট্টা, দুর্গাপুর, কমলকান্দা, কেন্দুয়া; কিশোরগঞ্জ জেলার অষ্টগ্রাম, বাজিতপুর, ভৈরব, হোসেনপুর, ইটনা, করিমগঞ্জ, কটিয়াদি; টাঙ্গাইল জেলার সদর, ভূয়াপুর, দেলদুয়ার, ধনবাড়ি, ঘাটাইল, গোপালপুর।

কুমিল্লা জেলার বরুয়া, ব্রাক্ষণপাড়া, বুড়িচং, চান্দিনা, চৌদ্দগ্রাম, সদর, মেঘনা, দাউদকান্দি এবং নোয়াখালী জেলার কবিরহাট, সদর, সেনবাগ, সোনাইমড়ি, সুবর্ণচর উপজেলার প্রার্থীদের পরীক্ষা ২২ এপ্রিল নেওয়া হবে।

এছাড়াও দ্বিতীয় ধাপের প্রাথমিকের নিয়োগ পরিক্ষা কত তারিখে অনুষ্ঠিত হবে, সে সম্পর্কে এখন পর্যন্ত নিশ্চিত কোন তথ্য পাওয়া যায় নি।

এবছর ৪৫ হাজারের বেশী সহকারি শিক্ষক পদে নিয়োগের জন্য পরীক্ষা নেবে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর। চলতি বছরের জুনে এসব শিক্ষকদের নিয়োগ প্রদান করা হবে।

তবে এরই মধ্যে খাগড়াছড়ি জেলার প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষার তারিখ প্রকাশ করা হয়েছে।

০৮ এপ্রিল শুক্রবার বিকাল ২.৩০ মিনিটে প্রাথমিকের খাগড়াছড়ি জেলার লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। (নিচের অনুচ্ছেদে এ বিষয়ের বিজ্ঞপ্তি যুক্ত করা হয়েছে)।

এর পূর্বে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারি শিক্ষক পদে নিয়োগ পরীক্ষা এপ্রিল মাসে অনুষ্ঠিত হবে বলে নিশ্চিত করেছিলেন প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর ।প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী।

৯ মার্চ ২০২২ . তারিখে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায়, প্রাথমিকের লিখিত পরীক্ষা এপ্রিলে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানা গেছে।

ঢাকার পাশাপাশি জেলা সদরেও প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে

২২ এপ্রিল ২০২২ তারিখ থেকে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হতে পারে বলে জানা যায় । এমন খবর দিয়েছেন প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তারা।

প্রাথমিকের পরীক্ষা বিষয়টি নিয়ে ২৯ মার্চ অধিদপ্তর সারাদেশের জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তাদের নিয়ে ভার্চুয়াল সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছে, কেন্দ্রীয়ভাবে পরীক্ষা নেয়া হবে না।

সম্প্রতি জানা যায় ঢাকার পাশাপাশি জেলা সদরে প্রাথমিকের নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠানের নিশ্চিত খবর পাওয়া গেছে।

নিচের বিজ্ঞপ্তিতে খাগড়াছড়ি জেলার প্রাথমিক শিক্ষক পদের নিয়োগ পরীক্ষার সময়সূচি ও কেন্দ্র সমূহের তালিকা দেখুন।

Assistant teacher job circular

circular 2

উল্লেখ্য এই যে প্রাথমিক সহকারি শিক্ষকের ৩২ হাজার ৫৭৭টি শূন্যপদে নিয়োগের জন্য প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের ২০ অক্টোবর বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছিল।

কিন্তু করোনা মহামারির স্বাবিক পরিস্থিতির জন্য নিয়োগ পরীক্ষা গ্রহণ সম্ভব হয়নি। অপরদিকে অবসরজনিত কারণে নতুন করে আরও দশ হাজারেরও বেশি সহকারী শিক্ষকের পদ শূন্য হয়ে পড়েছে।

এমতাবস্থায় শিক্ষা ব্যবস্থা স্বাভাবিক রাখতে মন্ত্রণালয় পূর্বের বিজ্ঞপ্তির শূন্যপদ ও বিজ্ঞপ্তির পরের শূন্যপদ মিলিয়ে প্রায় ৪৫ হাজার সহকারী শিক্ষক নিয়োগের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন।

বর্তমানে ধাপে ধাপে প্রাথমিকের এই নিয়োগের লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। তবে এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক কোন বিজ্ঞপ্তি বা পরীক্ষার সময়সূচি এখনো ও প্রকাশ করা হয়নি।

এই নিয়োগ প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে, প্রাক্​–প্রাথমিকে ২৫,৬৩০ জন এবং প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শূন্যপদে ৬,৯৪৭ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে।

এছাড়াও অবসরজনিত কারণে শূন্য হওয়া ১০ হাজারেও বেশী পদ যুক্ত করা হবে এই নিয়োগের সাথে। তাঁতে পদ সংখ্যা আরো বৃদ্ধি পাবে।

২০২০ সালের অক্টোবরে প্রাথমিকের নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিটি প্রকাশ করা হয়। কিন্তু করোনার কারণে দীর্ঘ দিন লকডাউন থাকায় নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়নি।

তবে করোনা সংক্রমণ কমে আসায় এপ্রিল থেকে পরীক্ষা গ্রহণের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.