travel

ভৈরব বাজার টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী, 2022 – বর্তমান ভাড়া, টিকিটের মূল্য ও সাপ্তাহিক বন্ধের দিন

রেল পথে কোথাও ভ্রমণ করার মজায় আলাদা। সেখানে না আছে যানজটের ঝামেলা আর না আছে কোনো ট্রাফিক। প্রকৃতির অপরূপ সৌন্দর্য আর মনোরম পরিবেশে কে না ভাসতে চায়। সেটা কাজের ক্ষেত্রে হোক কিংবা ঘুরতে যাওয়ার জন্য হোক সবচেয়ে উত্তম হবে ট্রেন মাওয়া। ভৈরব বাজার টু ঢাকা রেলওয়ে স্টেশনে মেইল এক্সপ্রেস ট্রেন গুলোর সাথে আন্তঃনগর ট্রেন চলাচল করে।

প্রিয় ভিজিটর বন্ধু আপনি যদি ভৈরব বাজার থেকে ঢাকা যাওয়ার ট্রেন সম্পর্কিত তথ্য খুঁজে থাকেন তাহলে আপনি ঠিক ওয়েবসাইট টি তে এসেছেন হ্যা বন্ধুরা এখানেই পাবেন আপনার প্রয়োজনীয় তথ্য। ভৈরব বাজার থেকে ঢাকা রেলপথে মেইল এক্সপ্রেস ও আন্তঃনগর এক্সপ্রেস গুলো নিয়মিত চলাচল করে। এই দিনগুলোকে পরিচালনা করে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। তাহলে দেখে নেয়া যাক ভৈরব বাজার টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী।

ভৈরব বাজার টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী (আন্তঃনগর এক্সপ্রেস):

১,মহানগর গোধূলি (703) ২, এগারসিন্দুর প্রভাতী (738) ৩, পার্বতীপুর এক্সপ্রেস(720) ৪, উপবন এক্সপ্রেস (740) ৫, তৃণা এক্সপ্রেস (741) ৬,এগারসিন্দুর গোধূলি (750) ৭, কালনী এক্সপ্রেস (774) এবং ৮, কিশোরগঞ্জ এক্সপ্রেস (782)

তবে মেইল এক্সপ্রেস গুলোর তুলনায় আন্তঃনগর এক্সপ্রেস গুলোর অভ্যন্তরীন অবস্থা বেশি ভালো ও যাতায়াত আরাম দায়ক। ট্রেন গুলো কখন ভৈরব বাজার থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে দেওয়া হয় এবং গন্তব্য স্থানে পৌঁছানোর সময় সূচি তালিকা দেওয়া হল-

ট্রেনের নাম ছুটির দিন ছাড়ায় সময় পৌছানোর সময়
মহানগর গোধুলি (৭০৩) নাই ১৯ঃ৪৪ ২১ঃ২৫
পার্বত এক্সপ্রেস (৭১০) মঙ্গলবার ২০ঃ৫৩ ২২ঃ৪০
মহানগর এক্সপ্রেস (৭২১) রবিবার ১৭ঃ১০ ১৯ঃ১০
এগারো সিন্ধুর প্রভাতী (৭৩৮) নাই ০৮ঃ১০ ১০ঃ৪০
উপবন এক্সপ্রেস (৭৪০) নাই ০৪ঃ৪৭ ০৬ঃ৪৫
তূর্ণা এক্সপ্রেস (৭৪১) নাই ০৩ঃ২৭ ০৫ঃ১৫
এগারো সিন্ধুর গোধূলি (৭৫০) বুধবার ১৪ঃ৪৫ ১৭ঃ০৫
কালনী এক্সপ্রেস (৭৭৪) শুক্রবার ১০ঃ৫৫ ১৩ঃ০০
কিশোরগঞ্জ এক্সপ্রেস (৭৮২) শুক্রবার ১৭ঃ৪৫ ২০ঃ১০

ভৈরব টু ঢাকা ট্রেনের সময়সূচী (মেইল এক্সপ্রেস):

ভৈরব বাজার থেকে ঢাকা রেলপথে আন্তঃনগর এক্সপ্রেস গুলোর সাথে সাথে কিছু মেইল এক্সপ্রেস ও যাতায়াত করে। ভৈরব বাজার থেকে ঢাকা রেলপথে মেইল এক্সপ্রেস গুলো হচ্ছে ১, কর্ণফুলী এক্সপ্রেস(০৩) ২, ঢাকা মেইল (০১) ৩, সুরমা মেইলে(১০) ৪, ঢাকা এক্সপ্রেস(১০) ৫, তিতাস কমিউটার(৩৩) ৬, তিতাস কমিউটার(৩৫) ৭, ইশা খান এক্সপ্রেস(৪০) ৮, চট্টলা এক্সপ্রেস(৬৭) ৯, কুমিল্লা কমিউটার(৮৯) এই ট্রেনগুলো নির্দিষ্ট সময়ে গন্তব্যস্থলে পৌঁছানোর জন্য অনেকটা যাতায়াত সুবিধা পাওয়া যায়। তাই স্ক্রিপ্ট না করে জেনে নিন ভৈরব বাজার থেকে ঢাকা যাওয়ার মেইল এক্সপ্রেস গুলো সময়সূচী তুলে ধরা হলো-
আসন বিভাগ টিকেটের মূল্য
শোভন ৮৫ টাকা
শোভন চেয়ার ১০৫ টাকা
প্রথম সিট ১৩৫ টাকা
প্রথম বার্থ ২০৫ টাকা
স্নিগ্ধা ১৯৬ টাকা
এসি সিট ২৩৬ টাকা
এসি বার্থ ৩৫১ টাকা

ভৈরব থেকে ঢাকা ট্রেনের টিকিটের মূল্য ( ভাড়া):

ভৈরব বাজার থেকে ঢাকা বিভিন্ন রকম ট্রেন চলাচল করা বিভিন্ন রকম হয়ে থাকে তবে ট্রেনগুলোর অভ্যন্তরীণ অবস্থা ও বিভিন্ন আসন এর জন্য নিম্ন থেকে ব্যয় বহুল আসন ব্যবস্থা রয়েছে যার টিকিটের মূল্য বিভিন্ন রকমের। তাই আপনি আপনার পছন্দমত আসনের টিকিট সংগ্রহ করে নিরাপদ ও আনন্দের সাথে ভ্রমণ করুন এই কামনাই করি। নিচে বিভিন্ন ধরনের আসনের টিকিটের মূল্য তুলে ধরা হলো-
আসন বিভাগ টিকেটের মূল্য
শোভন ৮৫ টাকা
শোভন চেয়ার ১০৫ টাকা
প্রথম সিট ১৩৫ টাকা
প্রথম বার্থ ২০৫ টাকা
স্নিগ্ধা ১৯৬ টাকা
এসি সিট ২৩৬ টাকা
এসি বার্থ ৩৫১ টাকা

Leave a Reply

Your email address will not be published.