টিপসস্বাস্থ্য

মুখে এলার্জি দূর করার উপায় জেনে নিন

এলার্জি দূর করার উপায়: সম্মানিত ভিজিটরস বন্ধুরা আজকে আপনাদের জানাবো কিভাবে মুখের এলার্জি দুর করার উপায়। শীত এলেই কিন্তু ত্বকে নানা রকম সমস্যা দেখা দেয় এর মধ্যে এলার্জি অন্যতম একটি সমস্যা। যার ফলে অনেক বন্ধুরাই অস্বস্তিতে ভোগেন। তবে একটু যত্ন নিলেই মুক্তি মিলতে পারে অস্বস্তিকর এই অবস্থা থেকে। তাহলে চলুন বন্ধুরা জেনে নিই কিভাবে মুখের ত্বকের এলার্জি থেকে মুক্তির উপায়।

আরো পড়ুন: গরমে মেয়েদের ত্বকের যত্ন কীভাবে নেবেন?

চুলকানি দূর করার সহজ উপায় জেনে নিন

এলার্জি দূর করার উপায়

বন্ধুরা শিশু এবং শিশুদের মধ্যে ত্বকের এলার্জির একটি নিরাপদ ঘরোয়া উপায় হলো হাতের কাছে নারকেল তেল। এক চা চামচ নারকেল তেল হালকা গরম করে এটি আক্রান্ত স্থানে লাগাতে হবে। প্রায় ৩০ মিনিট রাখার পর হালকা গরম জলে ধুয়ে ত্বক শুকিয়ে নিতে হবে। নিরাময় না হওয়া পর্যন্ত এটি দিনে ৩ থেকে ৪ বার ব্যবহার করতে হবে।

তুলসী

বন্ধুরা আপনারা কি জানেন তুলসীতে অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি রয়েছে যা ত্বকের চুলকানি হ্রাস করে। প্রথমে এক মুঠো তুলসী পাতা ভালো করে ধুয়ে নিয়ে পরে পাতাগুলি পেস্ট করে নিতে হবে। আক্রান্ত স্থানে পেস্টটি লাগিয়ে প্রায় ৩০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলতে হবে। স্বস্তির জন্য দিনে কয়েকবার লাগাতে পারেন এই পেস্ট।

নিম পাতা

বন্ধুরা নিম পাতা ত্বকের লালচেভাব, ফোলাভাব এবং চুলকানি দূর করতে দারুন কাজ করে।

বেশ কয়েকটি নিম পাতা পেস্ট করে আক্রান্ত স্থানে প্রয়োগ করতে হবে। ৩০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলতে হবে।

অ্যালোভেরা

বন্ধুরা অ্যালোভেরা জেল প্রাকৃতিক ওষধি এবং অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি বৈশিষ্ট্যগুলির কারণে অনেক প্রাকৃতিক নিরাময়ের প্রস্তুতিতে এটিকে ব্যবহার করা হয়। এটি পুনরুদ্ধার প্রক্রিয়াটিকে গতি দেয় এবং প্রশস্ত স্বস্তি দেয়, এটি দেহের ত্বকের অ্যালার্জির অন্যতম সেরা প্রতিকার।

পাতা থেকে এক চা চামচ জেলটি বের করে বা কিনে নেওয়া অ্যালোভেরা পণ্য থেকে এক চা চামচ জেলটি বের করতে হবে। পরে আক্রান্ত স্থানে জেলটি সরাসরি ছড়িয়ে দিতে হবে।

এলার্জি দূর করার উপায়-প্রায় ৩০ মিনিট ধরে রেখে এটি ধুয়ে ফেলুন। কয়েকদিন এক নাগারে দিনে তিনবার প্রয়োগ করুন, ভালো ফল পাবেন।

কোল্ড শাওয়ার

বন্ধুরা একটি ঠাণ্ডা স্নান ত্বকের জ্বালা এবং এলার্জি হ্রাস করতে সহায়তা করে। একটি শীতল ঝরনা আপনাদের রক্তনালীগুলি সঙ্কুচিত করতে সহায়তা করে এবং হিস্টামিন বেরোতে দেয় না। এটি অ্যালার্জির তীব্রতা এবং ত্বকের জ্বালাও হ্রাস করে।

অলিভ অয়েল

বন্ধুরা অতিরিক্ত ভার্জিন জলপাই তেল ময়েশ্চারাইজার হিসেবে আশ্চর্য করে। ভিটামিন ই সমৃদ্ধ এ তেল চুলকানি হ্রাস করে।

শেষ কথা: প্রিয় ভিউয়ার্স আশা করি উপরের নির্দেশাবলী গুলি অনুসরণ করলে আপনারা আপনাদের সমস্যা দূর করতে পারবেন। শেষ পর্যন্ত আমাদের এই নিবন্ধটি মনোযোগ সহকারে পড়ার জন্য আপনাদের আন্তরিক ধন্যবাদ। এছাড়া আপনাদের যদি আরো কোন কিছু জানার থাকে তাহলে আমাদের কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করে জানাবেন। আমরা যথাসাধ্য চেষ্টা করব আপনাদের সঠিক তথ্যাবলী উপস্থাপন করার। এছাড়া খুব সহজে আমাদের এই ওয়েবসাইটটি খুঁজে পেতে আপনার কম্পিউটার বুকমার্ক করে রাখতে পারেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.