বিউটি

মেয়েদের জন্য কোন ক্রিম সবচেয়ে ভালো জেনে নিন

কোন ক্রিম সবচেয়ে ভালো-সুপ্রিয় পাঠক বন্ধুরা নিজের ত্বকের ধরণ অনুযায়ী সঠিক ক্রিম ব্যবহার করা গেলেই কিন্তু ত্বকের সৌন্দর্যকে দীর্ঘদিন পর্যন্ত ধরে রাখা সম্ভব। এক্ষেত্রে ক্রিম ব্যবহার করার পূর্বে মেয়েদের জন্য কোন ক্রিম ভালো, কোন সময়ের জন্য কোন ক্রিম সবচেয়ে বেশি কার্যকর, কোন ক্রিম কিভাবে ব্যবহার করতে হবে, এসমস্ত তথ্য সবার জেনে নেওয়া বা জেনে রাখা প্রয়োজন। সেদিকটা মাথায় রেখে আজ আমরা আলোচনা করবো জনপ্রিয়, গুরুত্বপূর্ণ এবং মানসম্মত ক্রিম সম্পর্কে। যা একজন সৌন্দর্য সচেতন মেয়ে হিসেবে আপনাদের ব্যবহার করা উচিত। তাহলে চলুন বন্ধুরা মূল আলোচনায় যাওয়া যাক।

আরো দেখুন: ঘরোয়া পদ্ধতিতে ফেসিয়াল করার উপায়

মুখে এলার্জি দূর করার উপায় জেনে নিন

পন্ডস ড্রাই স্কিন ক্রিম

বন্ধুরা পন্ডস কোম্পানির ক্রিম সম্পর্কে আমরা মোটামুটি সকলেই জানি। এটি বেশ জনপ্রিয় একটি ব্র্যান্ড। বন্ধুরা এদের প্রতিটি প্রোডাক্ট বেশ সতর্কতার সাথে তৈরি হয় এবং এসব প্রোডাক্টের গুণগত মান সম্পর্কে যথেষ্ট সচেতনতা অবলম্বন করা হয়।

পাঠক বন্ধুরা পন্ডস ড্রাই স্কিন ক্রিম মূলত একটি মুখের ময়েশ্চারাইজার। যা প্রতিটি ড্রাই স্ক্রিনের মেয়েদের এই ক্রিমটা একবার ব্যবহার করে দেখা উচিত। এটি ত্বককে গভীরভাবে ময়েশ্চারাইজ করার পাশাপাশি মেকআপ ভালোভাবে এডজাস্ট করতে সাহায্য করে। সুতরাং মেকআপ করার আগে যেকেউ চাইলে এই ক্রিম মুখে লাগিয়ে নিতে পারেন। তাহলে চলুন বন্ধুরা এক নজরে এই ক্রিমের গুনগত মান সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জেনে নেই।

গুণাগুণঃ

  • বন্ধুরা ড্রাই স্কিনকে এই ক্রিম ভালো রাখতে সাহায্য করে। ব্যবহারের পর এটি ত্বককে গভীরভাবে হাইড্রেট করবে।
  • হাইড্রেটিং ফেসিয়াল ময়েশ্চারাইজার হিসেবে ত্বকে ব্যবহার করা যায়।
  • ব্যবহারের পর ত্বকে সহজেই শোষিত হয়ে যাবে এই ক্রিম।

অন্যান্য তথ্য

  1. স্কিন টাইপ: ড্রাই স্কিন।
  2. ব্যবহারবিধি: মেকআপ করার আগে কিংবা যেকোনো সময়েই ক্রিমটি ব্যবহার করা যাবে।
  3. সতর্কতা: ক্রিমের অংশবিশেষ চোখে ভুলবশত ঢুকে গেলে চোখ ধুঁয়ে নিতে হবে।

ওল্যাই মশ্চারাইজিং ক্রিম

পাঠক বন্ধুরা মেয়েদের জন্য কোন ক্রিম ভালো-এ প্রশ্নের উত্তর হিসেবে যে দ্বিতীয় ক্রিমটির আলোচনা করবো তার নাম হলো ওল্যাই ময়েশ্চারাইজিং ক্রিম।

মূলত এই ক্রিমটি শীতকালে ব্যবহার করা জন্য সবচেয়ে সবচেয়ে উপযুক্ত একটি ক্রিম। ড্রাই স্কিনের জন্য যারা শীতকালে অনেক বেশি সমস্যায় ভুগেন তারা এই ক্রিম ব্যবহার করে দেখতে পারেন। আশা করি আপনারা নিরাশ হবেন না। এছাড়াও যাদের ঘনঘন মুখ ধোঁয়ার অভ্যাস রয়েছে এবং সেই সাথে স্কিন টোনও প্রায় ড্রাই তারা এই ক্রিমের সাহায্য নিতে পারেন।

এই ময়েশ্চারাইজিং ক্রিম আপনার ডিহাইড্রেটেড ত্বককে সুস্থ রাখতে সবসময় গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করবে। যা ব্যবহার করলে টানা ১২ ঘন্টা পর্যন্ত এর সুফল ভোগ করা যাবে। এছাড়াও এই ময়েশ্চারাইজিং ক্রিম আপনার ত্বককে তারুণ্যময় ও সতেজ রাখতে ভালোই কাজ করবে। এক নজরে ক্রিমটির কিছু গুণাগুণ সম্পর্কে জেনে নিন।

গুণাগুণঃ

ছোট প্যাকেজিং সিস্টেমের কারণে সাথে রাখা যায়। ক্রিমটির খুব সুন্দর একটি ঘ্রাণ রয়েছে। ব্যবহারের সাথে সাথেই এটি ত্বকে কাজ করা শুরু করে দেয়। ত্বককে উজ্জ্বল করতে যথেষ্ট ভুমিকা রাখে। শীতকালের পাশাপাশি গ্রীষ্মকালেও ব্যবহার করা যায়।

অন্যান্য তথ্য

  • স্কিন টাইপ: ড্রাই স্ক্রিন।
  • ব্যবহারবিধি: মুখ ভালোভাবে পরিষ্কার করে হাতের আঙ্গুলের সাহায্যে সারা মুখে ধীরে ধীরে এই ক্রিম প্রয়োগ করতে হবে।
  • সতর্কতা: ব্যবহারের পর প্যাকের ঢাকনা বন্ধ কিনা তা নিশ্চিত হয়ে নিতে হবে।

পিওর এলো স্কীন ক্রিমঃ

বন্ধুরা বাজারে পাওয়া যায় এমন স্কিন ক্রিমের অভাব না থাকলেও সঠিক এবং মানসম্মত অ্যালোভেরা ক্রিম খুঁজে পাওয়াটা বেশ দুষয। আর এই দুষ্কর কাজকে সহজ করেছে পিউর অ্যালো স্কিন ক্রিম। এই ক্রিম ব্যবহারের ফলে ত্বকের ক্ষত এবং পোড়া, ছোটখাটো ত্বকের ভাইরাস, সিস্ট এবং ডায়াবেটিসের ক্ষেত্রে পজেটিভ প্রভাব বিস্তার লক্ষ্য করা যায়। এছাড়াও নেতিয়ে যাওয়া ত্বককে পুনরায় আগের মতো সতেজ করে তুলতেও এই ক্রিমের জুড়ি মেলা ভার।

গুণাগুণ

যেকোনো টাইপের স্কিনেই এই ক্রিম ব্যবহার করা যাবে। বছরের যেকোনো সময় আপনি এই ক্রিমের সুবিধা ভোগ করতে পারবেন। ত্বক স্বাস্থ্যকর এবং আরো ব্রাইট করতে সাহায্য করবে এই ক্রিম। এই ক্রিম আপনার ত্বকের আলসার দূর করতে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখবে।

অন্যান্য তথ্য:

  1. স্কিন টাইপ: যেকোনো স্কিন।
  2. ব্যবহারবিধি: মুখ ভালোভাবে ধুঁয়ে পরিষ্কার করে নেওয়ার পর হাতের আঙ্গুলের সাহায্যে সারা মুখে ক্রিমটি প্রয়োগ করতে হবে।
  3. সতর্কতা: কেনার সময় আসল-নকল ক্রিম পর্যালোচনা করে না কিনলে পরবর্তীতে ত্বকে নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে।

হিমালয়া নারিশিং স্কিন ক্রিমঃ

প্রিয় বন্ধুরা হিমালয়া ফেস-ওয়াশ তো বেশ জনপ্রিয়। তবে আপনারা কি হিমালয়া ন্যারিশিং স্কিন ক্রিম সম্পর্কে জানেন? না জানলে চোখ রাখুন “মেয়েদের জন্য কোন ক্রিম ভালো” রিলেটেড এই আর্টিকেলে ৷

বন্ধুরা এই ক্রিমটি মূলত সারাদিন ত্বকের তেজ, পুষ্টি, উজ্জ্বলতা এবং ময়েশ্চারাইজিং ধরে রাখতে সাহায্য করে৷ ক্রিমটি অ্যালোভেরা, উইন্টার চেরি, ইন্ডিয়ান কিনো ট্রি এবং ইন্ডিয়ান পেনিওয়ার্টের সাহায্যে তৈরি করা হয়েছে বলে এই কার্যক্ষমতা প্রকাশ পেতে খুব একটা সময় নেয় না। সারাদিন আমাদের ত্বকের উপর যে অত্যাচার চলে বিশেষ করে রোগ-জীবাণু, সূর্যের তাপ। যেভাবে আমাদের ত্বকের ক্ষতি করে, এই ক্রিম ঠিক সেভাবে এসব ক্ষতির মূখ থেকে আপনাদের স্কিনকে ফিরিয়ে আনে। এখনো কনফিউজড? তাহলে চলুন এই ক্রিমের গুণাগুণ সম্পর্কে আরেকটুখানি বাড়তি তথ্যে চোখ বুলানো যাক।

গুণাগুণঃ

এই ক্রিম ত্বক ময়েশ্চারাইজড রাখতে সাহায্য করে। আপনার ত্বক নরম, কোমল এবং টোনড দেখানোর ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করে। সব ধরনের ত্বকের জন্য উপযুক্ত এই ক্রিম। মেক আপ এর জন্য একটি বেস হিসাবে ব্যবহার করা যেতে পারে এই ক্রিম।

অন্যান্য তথ্য

স্কিন টাইপ: যেকোনো স্কিন।
ব্যবহারবিধি: ভালোভাবে মুখ পরিষ্কার করে পানি সরিয়ে নিন এবং সকাল থেকেই এই ক্রিমটি মুখে এপ্লাই করার চেষ্টা করুন। পাশাপাশি মেক আপ করার আগে এই ক্রিম ব্যবহার করতে পারেন। এতে ভালো ফল পাওয়া যাবে।
সতর্কতা: স্কিনে এলার্জি টাইপের কোনো রোগ থাকলে এই ক্রিম কোনোভাবেই ব্যবহার করা যাবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published.