সমস্যা এবং সমাধান

ল্যাপটপের ব্যাটারি ভালো রাখার 10 টি উপায়

আসসালামুআলাইকুম বন্ধুরা। কেমন আছেন আপনারা নিশ্চয়ই ভালো আছেন। তথ্যপ্রযুক্তির যুগে প্রতিনিয়ত আমরা অগ্রসর হচ্ছি। এই বিরাট অগ্রসর এর উদাহরণ হচ্ছে ল্যাপটপ। আজকে আমি ল্যাপটপের ব্যাটারি ভালো রাখার সম্পর্কে আপনাদের সাথে গুরুত্বপূর্ণ কিছু তথ্য শেয়ার করব। চলুন তাহলে আমরা শুরু করি আজকের বিষয়াবলী। ল্যাপটপের ব্যাটারি ভালো রাখার উপায় গুলো নিচে আলোচনা করা হলো:

ব্যাটারি অভার চার্জ করা

পূর্বে যে ডিভাইজগুলো ব্যবহার করা হতো সেগুলো কে আবার চার্জ করার বিষয়ে ঝামেলার সম্মুখীন হতে হতো। কিন্তু তথ্যপ্রযুক্তির উন্নত ব্যবহারের কারণে বর্তমানে এখন আর সেরকম ভাবে চিন্তা বা ঝামেলার সম্মুখীন হতে হয় না। বর্তমানে মোবাইল, ল্যাপটপ ও অন্যান্য ডিভাইস গুলোতে ওভার চার্জিং সার্কিট লাগানো থাকে যার কারণে অভার চার্জ হওয়ার কোন চান্স থাকে না। এ কারণে মোবাইল , ল্যাপটপ চার্জে দিয়ে কোন টেনশন করতে হয় না। লিথিয়াম আয়ন ও লিথিয়াম পলিমার দিয়ে তৈরি উচ্চশক্তিসম্পন্ন ব্যাটারি তৈরি করার জন্য এখন আর অভার চার্জ হয়না। ব্যাটারি যখন 100% চার্জ নিশ্চিত হয় তখন অটোমেটিক ভাবেই ব্যাটারি চার্জ নেওয়া বন্ধ করে দেয়। তবে অতিরিক্ত ভোল্টের কারণে কখনো কখনো চার্জার পুড়ে যেতে পারে তার জন্য অবশ্যই থেকে চার্জার খুলে রাখা উত্তম।

ব্যাটারি ডেট

যেকোনো পণ্যের একটি নির্দিষ্ট সময়সীমা থাকে এক সময় সেটি এসে হয় তেমনি আপনারা যতই দামি ল্যাপটপ কিনে না কেন একসময় ব্যাটারি ডেট হবেই। সেখানে অন্য কারো কিছু করার থাকবে না। তবে আপনারা যদি সাবধানে ব্যবহার করেন তাহলে ডেট হওয়া থেকে হয়তো কিছুটা রোধ করতে পারবেন। অবশ্য ব্র্যান্ডভেদে ব্যাটারি ব্যাকআপ করে থাকে। একটি ল্যাপটপের ব্যাটারিকে 500 থেকে 1000 বার চার্জ করানো যায়। তবে ব্যাটারি বেশি চার্জ করলে ব্যাটারি সমস্যা হয়ে যায়‌। এইজন্য মোবাইল কিংবা ল্যাপটপের ব্যাটারি 15 কিংবা 85% চার্জ করে রাখাই ভালো। অতিরিক্ত চার্জ দেওয়ার কারণে কখনো কখনো ল্যাপটপের ব্যাটারি ফুলে যায় ল্যাপটপ গরম হয় ফলে ল্যাপটপ সার্ভিসিং দেয়। এজন্য ল্যাপটপ চার্জ দেওয়ার সময় আপনাকে অবশ্যই নজর রাখতে হবে ল্যাপটপটি গরম হচ্ছে নাকি কিংবা চার্জ বেশি হয়ে যাচ্ছে নাকি।

চার্জার প্লগ-ইন

ল্যাপটপ চার্জ দেওয়ার সময় কখনো তাড়াহুড়া করবেন না ধীরে চিন্তাভাবনা করে সাবধানে ল্যাপটপ এ প্লগ-ইন করবেন না হলে পরবর্তীতে চার্জ নিতে সমস্যা করবে।

অরিজিনাল চার্জার ব্যবহার

অবশ্যই আপনারা আপনাদের ল্যাপটপের অরিজিনাল চার্জার ব্যবহার করবেন এতে আপনার ল্যাপটপ খুব তাড়াতাড়ি চার্জ দিতে হবে এবং ভোল্টেজ জনিত কোন সমস্যা করবে না। যদি আপনারা অন্য চার্জার ব্যবহার করতে চান তাহলে পরবর্তীতে আপনার ল্যাপটপের সমস্যা হতে পারে কিংবা পরবর্তীতে অরিজিনাল চার্জার দিয়ে চার্জ নাও হতে পারে।

তাপমাত্রা

নিরিবিলি ও ঠাণ্ডা পরিবেশে আপনারা আপনাদের ল্যাপটপ রাখবেন। উচ্চ তাপমাত্রায় কিংবা নিম্ন তাপমাত্রায় ল্যাপটপ রাখবেন না এতে আপনার ল্যাপটপ স্লো হয়ে যেতে পারে। তবে আপনার ল্যাপটপ যদি গরম হয়ে যায় তাহলে কুলিং ফ্যান দিয়ে ঠান্ডা করে নিতে পারেন তবে অবশ্যই খেয়াল রাখবেন যাতে বেশি ঠান্ডা হয়ে না যায় তা না হলে গতি ধীর সম্পন্ন হয়ে যাবে।

লেটেস্ট ওএস ব্যবহার

ওএস অপারেটিং সিস্টেম আপডেট করলে আপনার ল্যাপটপের গতি ও এনার্জি বৃদ্ধি পাবে তাই আপনি আপনার ল্যাপটপের এনার্জি সেভিং মোড বৃদ্ধি করার জন্য অবশ্যই অপারেটিং সিস্টেম আপডেট করবেন।

ল্যাপটপ বন্ধ রাখা

আপনাদের ল্যাপটপের কাজ শেষ হয়ে গেলে অবশ্যই ল্যাপটপ বন্ধ করে রাখবেন অযথা ল্যাপটপ অনেকক্ষণ করা থাকলে ল্যাপটপের হার্ড ডিক্সের সমস্যা হয়ে থাকে।

ব্যাটারি সার্ভার

আপনারা আপনাদের ল্যাপটপের ব্যাটারি সার্ভার অন করে রাখবেন তাহলেই ল্যাপটপের ব্যাকগ্রাউন্ড প্রসেস অটোমেটিক অফ হয়ে যাবে এতে আপনার ল্যাপটপের ব্যাটারি চার্জ সেইভ থাকবে।

স্ক্রীন ব্রাইটনেস

মোবাইলে কিংবা ল্যাপটপের স্ক্রীন ব্রাইটনেস বাড়িয়ে দিয়ে রাখে এতে আমাদের মোবাইল কিংবা ল্যাপটপ এ সার্চ অনেকটাই নষ্ট হয়ে যায় তাই আপনারা যদি ল্যাপটপের স্ক্রিন ব্রাইটনেস কমিয়ে দিয়ে থাকেন তাহলে আপনাদের ল্যাপটপের ব্যাটারি চার্জ সঞ্চিত থাকে এবং ব্যাটারি অনেকদিন টিকস‌ই দিবে.

আজকে এখানেই শেষ করলাম আপনাদের যদি আরও কোন তথ্য জানার ইচ্ছে থাকে তাহলে আমাদের অবশ্যই কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করে জানাবেন আমরা চেষ্টা করবো আপনাকে সঠিক তথ্য দেওয়ার জন্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published.