টিপস

স্যামসাং একাউন্ট কি? কিভাবে তৈরি করে ও এর সুবিধা জেনে নিন

সম্মানিত ভিজিটরস বন্ধুরা আপনাদের সবাইকে স্বাগতম। আজকে আমরা এই পোস্টে জানাবো স্যামসাং একাউন্ট কি, স্যামসাং একাউন্ট এর সুবিধা ও ফিচার, এবং স্যামসাং একাউন্ট তৈরির নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য।

স্যামসাং একাউন্ট কি?

বন্ধুরা বর্তমানে প্রায় প্রতিটি স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ব্যবহারকারীদের এক্সক্লুসিভ সুবিধা প্রদানে তাদের উক্ত ব্র্যান্ডের একাউন্ট তৈরির একটি অপশন প্রদান করে। অ্যাপল ডিভাইসগুলোতে অ্যাপল আইডি বা অ্যাপল একাউন্ট ব্যবহার বাধ্যতামূলক হলেও অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসগুলোতে এই ফিচার গুলো অপশনাল। পাঠক বন্ধুরা স্যামসাং ব্যবহারকারীদের জন্য স্যামসাং অফার করে স্যামসাং একাউন্ট, যার মাধ্যমে স্যামসাং প্রদত্ত অনেক এক্সক্লুসিভ সুবিধা পাওয়া যায়।

আরো পড়ুন: উইন্ডোজ ১০ এর মধ্যে বিজ্ঞাপন বন্ধ করবেন কিভাবে

ফোনের SAR ভ্যালু কি? এর সুবিধা বা অসুবিধা জেনে নিন

স্যামসাং একাউন্টের সুবিধা

বন্ধুরা স্যামসাং একাউন্টের অনেক ধরনের সুবিধা রয়েছে, যেমনঃ

  • ফোনের লোকেশন খুঁজে বের করার সিস্টেম।
  • রিমোটলি ফোন লক, আনলক বা রিসেট করার সিস্টেম।
  • স্যামসাং পে, বিক্সবি, স্যামসাং হেলথ ও স্যামসাং পাস এর মত এক্সক্লুসিভ অ্যাপ এর অ্যাকসেস ও পাওয়া যায়।
  • ডাটা ও ফটো গ্যালারি ব্যাকাপ রয়েছে।

বন্ধুরা স্যামসাং একাউন্ট তৈরির পর আপনারা উল্লেখিত সকল স্যামসাং সার্ভিস ব্যবহার করা যাবে বেশ সহজেই।

স্যামসাং একাউন্টের ফিচারসমূহ

বিভিন্ন ধরনের ফিচার যেমন সাপোর্টেড টিভি, স্যামসাং গিয়ার, কম্পিউটার, ইত্যাদিতে ব্যবহার করা যাবে স্যামসাং একাউন্ট এর মাধ্যমে। এছাড়াও স্যামসাং একাউন্টের ফিচার এর তালিকা অনেক বড়। বন্ধুরা আমরা সংক্ষেপে স্যামসাং একাউন্ট এর ফিচারসমূহ সম্পর্কে আপনাদের জানবো আমাদের এই পোস্টের মাধ্যমে চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক ফিচার গুলো।

ফাইন্ড মাই মোবাইল

পাঠক বন্ধুরা স্যামসাং একাউন্টের সবচেয়ে কাজের ফিচার হলো ফাইন্ড মাই মোবাইল। এই ফিচারটি ব্যবহার করে আপনাদের স্যামসাং ডিভাইসের লোকেশন খুব সহজেই খুঁজে বের করতে পারবেন রিমোটলি। ফোন হারিয়ে গেলে অথবা লক করা বা পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে আনলক করার মত সুবিধা প্রদান করে এই ফিচারটি।

স্যামসাং ক্লাউড

বন্ধুরা স্যামসাং ক্লাউড হচ্ছে গুগল ড্রাইভ এর মতোই একটি সিস্টেম যেখানে ক্যালেন্ডার থেকে শুরু করে কনটাক্ট, ইমেইল এড্রেস, ছবি, ভিডিও, এমনকি স্টোরিও ব্যাকাপ নিয়ে রাখা যায়। ব্যাকাপের তালিকায় আরো রয়েছে প্রিডিক্টিভ টেক্সট ডাটা, স্যামসাং পাস সহ আরো ডজনখানেক ডাটা ব্যাকাপ নেওয়ার অনন্য সুযোগ।

স্যামসাং হেলথ

বন্ধুরা স্যামসাং হেলথ স্বাস্থ্য সম্পর্কিত বিভিন্ন ধরনের ডিজিটাল সেবা প্রদান করে থাকেন । ওয়ার্কআউট থেকে শুরু করে পানি পানের শিডিউল পর্যন্ত সবকিছুর হিসাব রাখতে পারে এই স্যামসাং হেলথ। মূলত এই অ্যাপস ব্যবহারকারী বন্ধুকে নিজের হেলথ এর উপর নজর রাখতে যথেষ্ট সাহায্য করে থাকে।

PENUP

বন্ধুরা PENUP হলো আর্টিস্টদের জন্য একট সোশ্যাল নেটওয়ার্ক, যেখানে আপনাদের নিজেদের কাজগুলো শেয়ার করতে পারেন আর্টিস্টবন্ধুরা। মূলত এস-পেন ব্যবহার করে তৈরি আর্ট প্ল্যাটফর্মটিতে শেয়ার করতে উদ্ধুব্ধ করেছে স্যামসাং।

স্যামসাং একাউন্ট তৈরী করার নিয়ম

পাঠক বন্ধুরা এতোক্ষণ স্যামসাং একাউন্টের ফিচার সম্পর্কে জানলাম , এবার চলুন জেনে নেওয়া যাক কিভাবে স্যামসাং একাউন্টটি তৈরি করবেন। সকল ধরনের ব্যবহারকারী বন্ধুদের সুবিধার্থে আমরা এখানে ব্রাউজার ব্যবহার করে স্যামসাং একাউন্ট তৈরির নিয়ম সম্পর্কে জানবো। আপনারা চাইলে স্যামসাং ডিভাইসের সেটিংস থেকেও সরাসরি স্যামসাং একাউন্ট থেকে খুলতে পারেন।

স্যামসাং একাউন্ট তৈরি করার জন্য স্যামসাং একাউন্ট ওয়েব পেজে প্রবেশ করে Create Account অপশন সিলেক্ট করতে হবে।

স্যামসাং একাউন্ট তৈরী করার নিয়ম

এরপর আপনারা Terms & Conditions দেখতে পাবেন। প্রয়োজন হলে শর্ত ও নিয়মাবলীসমূহ পড়ে পরবর্তী পেজে যেতে AGREE সিলেক্ট করতে হবে।

স্যামসাং একাউন্ট তৈরী করার নিয়ম

এরপর আপনাদের ইমেইল এড্রেস ও স্যামসাং একাউন্টের জন্য পাসওয়ার্ড এর পাশাপাশি প্রোফাইলের জন্য প্রয়োজনীয় তথ্যসমূহ প্রদান করতে হবে। এরপর আপনাদের ইমেইলে আসা কোড দিয়ে একাউন্ট ভেরিফাই করে নিতে হবে।

স্যামসাং একাউন্ট তৈরী করার নিয়ম

বন্ধুরা উপরের উল্লেখিত প্রক্রিয়া গুলো সঠিকভাবে অনুসরণ করলে আপনাদের স্যামসাং একাউন্টটি তৈরি হয়ে যাবে।

স্মার্টফোনে স্যামসাং একাউন্ট এড করার নিয়ম

পাঠক বন্ধুরা স্যামসাং একাউন্ট তৈরীর পর স্যামসাং স্মার্টফোনে স্যামসাং একাউন্টটি এড করতে হবে। আপনাদের ফোনের উপর নির্ভর করবে স্যামসাং একাউন্ট ফোনে এড করার প্রক্রিয়া । কারন বিভিন্ন ফোনে কিছুটা ভিন্ন হতে পারে। স্যামসাং একাউন্ট স্যামসাং ফোনে এড করতে হবেঃ
  • স্যামসাং ফোনে Settings অ্যাপে প্রবেশ করতে হবে।
  • নিচের দিকে স্ক্রল করে প্রথমে Cloud and account ও এরপর Accounts অপশন সিলেক্ট করতে হবে।
  • যে ইতিমধ্যে স্যামসাং একাউন্ট এড করা থাকলে তা রিমুভ করে তবেই নতুন একাউন্ট এড করা যাবে
  • Add Account অপশন সিলেক্ট করতে হবে।
  • এরপর Samsung Account সিলেক্ট করতে হবে।
  • ইতিমধ্যে খোলা একাউন্ট এড করতে ইমেইল ও পাসওয়ার্ড প্রদান করে লগিন করে
  • এছাড়া চাইলে Create account অপশন সিলেক্ট করে সহজে নতুন একাউন্ট তৈরি করতে পারেন।
একাউন্ট সেটাপের পর Accounts সেকশন থেকে Auto sync data অপশনটি চালু করে দিন, এতে আপনার স্যামসাং একাউন্টের ডাটা অটোমেটিক ক্লাউডে ব্যাকাপ নেওয়া থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.