টিপস

ফেসবুক একাউন্ট ডিএকটিভ করার নিয়ম

সম্মানিত সুপ্রিয় পাঠক বন্ধুরা আপনাদের সবাইকে জানাই স্বাগতম। পাঠক বন্ধুরা ফেসবুক থেকে বিরতি নিতে চাইলে একাউন্ট লগ আউট করা ছাড়াও আরো অনেক অপশন রয়েছে। আপনারা চাইলে আপনাদের ফেসবুক একাউন্ট ডিএকটিভ, এমনকি ডিলিট ও করতে পারবেন কয়েকটি সহজ ধাপে। তাহলে বন্ধুরা চলুন জেনে নেওয়া যাক ফেসবুক একাউন্ট ডিএক্টিভ করার কিছু নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য।

ফেসবুক একাউন্ট ডিএকটিভ করলে কি হয়?

ফেসবুক একাউন্ট ডিএকটিভ করলে আইডি পুনরায় একটিভ করা ছাড়া ফেসবুকের কোনো ফিচার ব্যবহার করতে পারবেন না। আপনাদের প্রোফাইলে কিংবা কোনো গ্রুপে পোস্ট করা কোনো ছবি, ভিডিও বা যেকোনো পোস্ট ফেসবুকে আর দেখতে পারবেন না। তবে আপনাদের করা কোনো পোস্ট বা কমেন্ট ডিলিট হবেনা। একাউন্ট পুনরায় একটিভ করলে আবার ফিরে পাবেন আপনাদের সকল পোস্ট ও কমেন্ট।

বন্ধুরা আপনারা চাইলে ফেসবুক ডিএক্টিভ করে শুধুমাত্র মেসেঞ্জার চালু রাখতে পারবেন। ফেসবুকের ইউজারনেম ও পাসওয়ার্ড দিয়েই মেসেঞ্জার অ্যাপে লগিন করে আগের মত চ্যাট করতে পারবেন। তবে আপনারা চাইলে ফেসবুকের সাথে সাথে মেসেঞ্জারও ডিএকটিভেট করতে পারবেন।

প্রয়োজন কিংবা অপ্রয়োজনে ফেসবুক একাউন্ট ডিএকটিভ করা যেতে পারে। আপনারা যদি ফেসবুকে আসক্ত হন, তাহলে কিছুদিনের জন্য ফেসবুক ডিএকটিভ রাখতে পারেন। বেশ কিছুদিন ফেসবুক ডিএকটিভ করা থাকলে ফেসবুকের আসক্তি অনেকটাই কমে যেতে পারে। অর্থাৎ বন্ধুরা কোনো সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়ার পাশাপাশি ফেসবুক থেকে বিরতি নেওয়ার কাজে আপনারা ফেসবুক একাউন্ট ডিএকটিভ করতে পারেন।

ফেসবুক একাউন্ট ডিএক্টিভ করার নিয়ম

বন্ধুরা আপনাদেরকে প্রথমেই বলে নিই, ফেসবুক একাউন্ট ডিএক্টিভ করা আর ডিলিট করা কিন্তু আলাদা। আপনারা ফেসবুক একাউন্ট ডিএক্টিভ করলে পরে পূনরায় ফেসবুকে লগইন করতে পারবেন। কিন্তু লগইন করার আগে পর্যন্ত কেউ আপনাদেরকে ফেসবুকে খুঁজে পাবেনা। অপরদিকে, ফেসবুক একাউন্টটি ডিলিট করলে আপনাদের একাউন্টটি স্থায়ীভাবে মুছে যাবে। আপনারা চাইলে ও উক্ত একাউন্টে পরে আর লগইন করতে পারবেন না।

ফেসবুক মোবাইল অ্যাপ কিংবা কম্পিউটারে ব্রাউজার থেকে ফেসবুক একাউন্ট ডিএকটিভ করা যবে। বন্ধুরা চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক কিভাবে মোবাইল ও কম্পিউটারে ফেসবুক একাউন্ট ডিএকটিভ করবেন।

প্রথমত কম্পিউটার ফেসবুকে প্রবেশ করে ডানদিকের ড্রপডাউন অ্যারোতে ক্লিক করতে হবে।

  • Settings & Privacy ও এরপর Settings সিলেক্ট করে এরপর Privacy > Your Facebook Information অপশনে ক্লিক করতে হবে।
  • Deactivation and deletion ক্লিক করতে হবে।
  • এরপর Deactivate account এর পাশে থাকা সার্কেলে ক্লিক করতে হবে (অবশ্যই খেয়াল করতে হবে, ডিলিট না কিন্তু!)
  • এবার Continue তে ক্লিক করে স্ক্রিনে প্রদর্শিত নির্দেশনা করে একাউন্ট ডিএক্টিভ সম্পন্ন করতে হবে।

মোবাইল

বন্ধুরা মোবাইল থেকে ফেসবুক অ্যাপ ব্যবহার করে খুব সহজে ফেসবুক একাউন্ট ডিএকটিভ করা যাবে। মোবাইল থেকে ফেসবুক একাউন্ট ডিএকটিভ করার জন্য আপনাদেরকে করতে হবেঃ

  • ফেসবুক অ্যাপে প্রবেশ করে হরাইজন্টাল থ্রি-বার আইকনে ট্যাপ করতে হবে।
  • এরপর নিচের দিকে স্ক্রল করে Settings & Privacy অপশনে ট্যাপ করতে হবে।
  • Settings এ ট্যাপ করতে হবে।
  • Account সেকশনে থাকা Personal Information > Manage Account অপশনে ট্যাপ করতে হবে।
  • Deactivation and deletion অপশনে ট্যাপ করতে হবে।
  • Deactivate account সিলেক্ট করে Continue to account deactivation অপশনে ট্যাপ করতে আপনাদের ফেসবুক পাসওয়ার্ড প্রদান করে স্ক্রিনে প্রদর্শিত নির্দেশনা অনুসরণ করে একাউন্ট ডিএকটিভের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে।

ফেসবুক একাউন্টটি ডিএকটিভ করা অনেকের কাছে একটি জটিল সিদ্ধান্ত মনে হয়। বন্ধুরা ফেসবুকের প্রাইভেসি ও সিকিউরিটি রক্ষা করতে নিচের টিপসগুলো আপনারা অনুসরণ করতে পারেনঃ

  • দীর্ঘ ও ইউনিক পাসওয়ার্ড সেট করার চেষ্টা করে চাইলে আপনারা বিশ্বস্ত পাসওয়ার্ড ম্যানেজার ব্যবহার করতে পারেন।
  • ফেসবুকে আপনাদের ব্যাক্তিগত তথ্য অধিক পরিমাণে শেয়ার করা থেকে বিরত থাকতে ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট একসেপ্ট করার সময় যাচাই বাচাই করে একসেপ্ট করতে পারেন।
  • পোস্ট পাবলিক না রেখে ফ্রেন্ডস সেট করতে পারেন। ফেসবুক সেটিংস হতে General > Privacy > Your Activity > Limit Past Posts অপশনে প্রবেশ করে পুরোনো পোস্টের প্রাইভেসি লিমিট করে দিন।
  • ফেসবুক সেটিংস থেকে General > Apps and Websites অপশনে প্রবেশ করে থার্ড-পার্টি অ্যাকসেস নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন।
  • সোশ্যাল মিডিয়া স্ক্যাম থেকে সাবধানে থাকুন ও ফেসবুক বা মেসেঞ্জারে কোনো লিংকে ক্লিক করার সময় সাবধানতা অবলম্বন করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.