সমস্যা এবং সমাধান

ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করার সঠিক পদ্ধতি

প্রিয় ভিজিটর বন্ধুরা আজকে আমি আরও একটি নতুন বিষয় নিয়ে তোমাদের সামনে হাজির হয়েছি। ইউটিউব এ নিত্যনতুন পছন্দের গান নাটক সিনেমা ডাউনলোড করার জন্য আমাদের মাঝে মাঝে সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় আজ আমরা সেই সমস্যা ও সমাধানের বিষয় নিয়ে আলোচনা করব চলো তাহলে শুরু করা যাক আমাদের আজকের আলোচনা, দুইভাবে ইউটিউব এ ডাউনলোড করা সম্ভব নেট সোলো বা কম থাকার কারণে আমাদের অনেক সময় ঝামেলায় পড়তে হয়। এই কারণে আমরা আমাদের পছন্দের ছবি নাটক গান এসব দেখতে পারিনা। ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করার সঠিক পদ্ধতি.

এই ঝামেলা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য আমরা ডাউনলোড অপশনে ক্লিক করলে সেটি অটোমেটিক সেইভ হয়ে যাবে পরবর্তীতে আমরা অফলাইন অবস্থায় সেগুলো দেখতে পাবো। এই সমস্ত গান নাটক সিনেমা গুলো 30 দিনের জন্য ইউটিউবে সংরক্ষিত থাকবে পরবর্তীতে এটি অটোমেটিকলি ফ্রী ডাউনলোড হয়ে যাবে তখন পুরনো আপনাদের সেগুলো ডাউনলোড করতে হবে অথবা আপনারা যদি এগুলোকে ডিভাইস স্টোরেজে সংরক্ষণ করে থাকেন তাহলে এগুলো স্থায়ী ভাবে সংরক্ষন হয়ে যাবে আপনি যখন খুশি তখনই এই সমস্ত ভিডিও দেখতে পাবেন।

ইউটিউব কি

বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ও ভিডিও স্ক্রিম হচ্ছে ইউটিউব প্ল্যাটফর্ম। ইউটিউবে মাধ্যমে বিশ্বের বিভিন্ন ধরনের মানুষের ভিডিও বিনোদন শিক্ষা এবং বিভিন্ন বিষয়ে ব্যবহার করে থাকেন। তবে নেট ধীর গতিসম্পন্ন হওয়ার কারণে আমরা অনেক সময় আমাদের প্রয়োজনীয় ও গুরুত্বপূর্ণ ভিডিও দেখতে পারি না হলে বিরক্ত হয়ে বা ক্লান্ত হয়ে পড়ি। এই সকল সমস্যা পরিত্রাণের জন্য আপনারা অফলাইনে অথবা এ স্টোরেজে সংরক্ষন করে রেখে ইচ্ছে মতো দেখতে পারেন।

ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করার পদ্ধতি

পদ্ধতি 1:

ইউটিউব ওপেন করলে লাইক বাটন এর গামে ডাউনলোড নামের একটি বাটন দেখা যায় সেখানে ক্লিক করলেই অফ লাইনে সেভ হয়ে যাবে। অথবা এ স্টোরেজে সেভ করে রাখা যায়। পরবর্তীতে এই ভিডিওগুলো ইন্টারনেট সংযোগ ছাড়াই দেখতে পাবেন আপনারা।

পদ্ধতি 2:

আপনারা যদি স্থায়ীভাবে ভিডিও সংরক্ষণ করতে চান তাহলে স্নাপটিউব অ্যাপস থেকে খুব সহজেই ডাউনলোড করতে পারবেন। স্নাপটিউব অ্যাপস টি বেশ জনপ্রিয় এবং এই স্নাপটিউব ভিডিও ডাউনলোড করতে কম সময় লাগে। স্নাপটিউব এই ইউটিউব ছাড়া টুইটার ইনস্টাগ্রাম ডাউনলোড করা যায়।

পদ্ধতি 3:

উপরের দুই পদ্ধতি যদি আপনাদের ভালো লেগে না থাকে তাহলে আপনারা ইউটিউব এর একটি লিংক কপি করে সেখান থেকে ভিডিও স্টোরেজে করে রাখতে পারেন।

পদ্ধতি 4:

এছাড়া ভিটমেট অ্যাপস এ গিয়ে আপনি যদি ইউটিউব ডাউনলোড করেন তাহলে সেই ভিডিও গুলো স্থায়ীভাবে স্টার্ট হয়ে যাবে এবং আপনাদের ইচ্ছেমতো আপনারা সেই ভিডিও গুলো দেখতে পারবেন অফলাইনে।

কম্পিউটার/ পিসি এর জন্য ডাউনলোডের উপায়: Vlc media player:

ইউটিউব লিংক থেকে কপি করে vcl open করলে ভিডিও ডাউনলোড করা যাবে।

পদ্ধতি 2:

4k vedio downloader: 4k vedio downloader এর মাধ্যমে খুব সহজে ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করা যায় এজন্য ইউটিউব লিংক কপি করে অবশ্যই ওপেন করতে হবে।

পদ্ধতি 3: Winx youtube downloader: winx youtube downloader এর মাধ্যমে যেকোনো ভিডিও ডাউনলোড করা যায়। এর জন্য ইউটিউব লিংক কপি করে এই অ্যাপসের মাধ্যমে সেটি ওপেন করতে হবে তাহলেই আপনারা আপনাদের পছন্দের যেকোন ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন।
এই পদ্ধতিগুলো অবলম্বন করে আপনারা আপনাদের পছন্দের ভিডিও ডাউনলোড করতে পারেন এবং সেটি স্থায়ীভাবে সংরক্ষণ করতে পারবেন। আমার উপস্থাপনের যদি কোন ভুল ত্রুটি থেকে থাকে তাহলে ক্ষমার দৃষ্টিতে তাকাবেন। অবশ্যই আপনাদের প্রয়োজনীয় তথ্যাবলী জানার জন্য আমাদের কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করে জানাবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.