সংবাদ

লোড শেডিং শিডিউল ২০২২ – দেখুন ৬৪ জেলার এলাকা ভিত্তিক লোডশেডিং তালিকা

লোড শেডিং শিডিউল ২০২২-সুপ্রিয় পাঠক বন্ধুরা মঙ্গলবার থেকে সারাদেশে শুরু হচ্ছে এলাকাভিত্তিক লোডশেডিং। সংবাদ মাধ্যম থেকে বাংলাদেশের জ্বালানি ও বিদ্যুৎ মন্ত্রণালয় থেকে এ বিষয়ে সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরেন জ্বালানি বিষয়ে উপদেষ্টা ডঃ তৌফিক ই ইলাহী চৌধুরী। যেখানে চূড়ান্তভাবে সিন্ধান্ত নিয়ে বিদ্যুৎ লোড শেডিং শিডিউল ২০২২ ও জ্বালানি মন্ত্রণালয় থেকে প্রকাশিত করা হয়েছে বাংলাদেশের ৬৪ জেলার এলাকা ভিত্তিক লোড শেডিং সময়সূচী।

বন্ধুরা ইতিমধ্যেই বাংলাদেশের বিভিন্ন জায়গায় লোডশেডিং এর সমস্যা খুবই গুরুত্বপূর্ণ আকারে দেখা দিয়েছে। যার ফলে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি মন্ত্রণালয় থেকে বিভিন্ন ধরনের পরিকল্পনা করে সংবাদমাধ্যমে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরা হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়েছে রাত আটটার পর শপিংমলসহ বিভিন্ন রেস্টুরেন্ট বন্ধ রাখার ঘোষণা।

পাঠক বন্ধুরা বাংলাদেশের সকল নাগরিক দের জানানো হয়েছে বিদ্যুৎ ব্যবহারের প্রতি সাশ্রয়ী হওয়ার জন্য। ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও এলাকাভিত্তিক লোডশেডিং সময়সূচী তৈরি করে তাদের ওয়েবসাইটে আপলোড করেছে। যেখান থেকে ডিপিডিসির বিদ্যুৎ ব্যবহারকারী গ্রাহকগণ তাদের ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে লিংকে ক্লিক করে তাদের এলাকার সম্ভাব্য লোডশেডিং এর সময়সূচী ডাউনলোড করতে পারবেন।

বর্তমানে বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড (বিআরইবি) এদের ৮০টি সমিতির মাধ্যমে দেশের প্রায় ৭৫ শতাংশ মানুষকে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া হয়েছে। বাকি ২৫ শতাংশ গ্রাহককে বিদ্যুৎ সংযোগ দিয়েছে ৫টি বিতরণ কোম্পানি। ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি রাজধানী এবং নারায়ণগঞ্জের একটি বড় অংশে বিদ্যুৎ সরবরাহ করে থাকে। ঢাকা ইলেকট্রিক সাপ্লাই কোম্পানি বিদ্যুৎ বিতরণ করে ঢাকার একটি অংশ এবং সাভার ও টঙ্গী এলাকা ও তার আশপাশের এলাকায়।

লোড শেডিং শিডিউল ২০২২

বন্ধুরা আপনারা সকলে জানেন ওয়েস্ট জোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি (ওজোপাডিকো) খুলনা এবং বরিশাল অঞ্চলে বিদ্যুৎ সরবরাহ করে। নর্দান ইলেকট্রিক সাপ্লাই কোম্পানি (নেসকো) বিদ্যুৎ সরবরাহ করে রংপুর রাজশাহী অঞ্চলে। বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি) দেশের বাকি এলাকা গুলোতে বিদ্যুৎ সরবরাহ করে।

পিডিবির আওতাধীন চারটি অফগ্রিড এলাকার মধ্যে দ্বীপ উপজেলা সন্দ্বীপ, হাতিয়া, কুতুবদিয়া, আশুগঞ্জ (চর সোনারামপুর) অফগ্রিড এলাকায় বিদ্যুতায়নের কাজ করছে। এছাড়া ও পার্বত্য অঞ্চলের ২৬ টি উপজেলায় অফগ্রিড হওয়ায় সেখানেও বিদ্যুতায়নের কাজ চলমান।

বাংলাদেশের লোডশেডিং এর সময়সূচি ২০২২

পাঠক বন্ধুরা অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের বৈঠকে বলা হয়েছে দেশের সকল বিদ্যুৎ বিতরণ কোম্পানিকে লোডশেডিং এর সময়সূচি তৈরি করে অতি দ্রুত তাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করতে হবে। খুব শীঘ্রই গ্রাহক বন্ধুরা এই তথ্য বিভিন্ন পত্রিকা ও বিদ্যুৎ প্রদানকারী কোম্পানিগুলোর ওয়েবসাইটে লিংকে ক্লিক করে সময়সূচি ডাউনলোড করতে পারবে। বন্ধুরা বাংলাদেশের ৬৪ জেলার ও উপজেলার বিদ্যুৎ লোডশেডিং এর সময়সূচি প্রকাশ করা হয়েছে আমাদের আজকের এই পোস্টে।

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি মন্ত্রণালয় থেকে বৈঠক সবাই বলা হয় বিদ্যুৎ সমস্যা সমাধানের জন্য প্রতিটি মসজিদের এসি বন্ধ ও দোকানপাট ও মার্কেট রাত আটটার পর বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে সরকারি সকল ধরনের অফিস ভার্চুয়াল ভাবে পরিচালনা করার পরিকল্পনা হাতে নেওয়া হয়েছে। সিএনজি পামগুলো সপ্তাহে একদিন বন্ধ রাখা হবে যাতে বিদ্যুৎ খরচ কম হয়।

এলাকা ভিত্তিক লোডশেডিং তালিকা ২০২২

পাঠক বন্ধুরা সংবাদ সম্মেলনে আরও বলা হয়েছে গাড়িতে তেলের ব্যবহার কমাতে হবে। বৈঠক সভায় আরো বলা হয়েছে ডিজেল ভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র গুলো বন্ধ রাখা হবে ও পেট্রোল পাম্প গুলো সপ্তাহে একদিন বন্ধ রাখা হবে যাতে বিদ্যুতের ব্যবহার কমে। জ্বালানি মন্ত্রণালয় উপদেষ্টা সরকারি ও বেসরকারি অফিসের সময় এক থেকে দুই ঘন্টা কমিয়ে আনার চিন্তাও করেছে তবে এ বিষয়ে এখনো চূড়ান্ত কোন সিদ্ধান্ত জানানো হয়নি।

লোডশেডিং এর সময়সূচি

বন্ধুরা বাংলাদেশের যে কোন জেলার ও উপজেলার বিদ্যুৎ লোডশেডিং এর সিডিউল বা সময়সূচী নিচে থেকে সংগ্রহ করে নিন। আপনাদের জেলার ও উপজেলার লোডশেডিং সময়সূচী জানতে আপনাদের জেলার নামের উপর টাচ করুন। অন্যদিকে কিছু জেলার লোডশেডিং সময়সূচী এখনো আপডেট হয়নি। তাই সর্বশেষ আপডেট পেতে আমাদের সাথেই থাকুন।

লোড শেডিং এর সময়সূচি জানার উপায় ২০২২

বাংলাদেশের সকল জেলার মানুষ চিন্তিত হয়ে পড়েছে লোডশেডিং এর সিডিউল প্রকাশ করার পর থেকে। কারণ তারা জানতে পারছে না কখন থেকে কখন পর্যন্ত লোডশেডিং হবে। বিদ্যুৎ সমস্যা দেখা দিয়েছে বাংলাদেশে যার জন্য বিদ্যুৎ না থাকার সময়সূচী প্রকাশ করেছে জ্বালানি ও বিদ্যুৎ মন্ত্রণালয় থেকে। যেখানে বাংলাদেশের সকল জেলার জন্য লোডশেডিং এর সিডিউল প্রকাশ করা হয়েছে।

বন্ধুরা আপনাদের নিজের জেলার বিদ্যুৎ লোডশেডিং এর সময়সূচি জানতে পারবেন অনলাইনের মাধ্যমে। আপনারা যে কোম্পানির বিদ্যুৎ ব্যবহার করেন তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে আপনাদের নিজস্ব এলাকাভিত্তিক লোডশেডিং এর সময়সূচি ডাউনলোড করতে পারবেন।

বন্ধুরা এখানে উল্লেখ করা হয়েছে কিভাবে এলাকাভিত্তিক বিদ্যুৎ লোডশেডিং এর সিডিউল সংরক্ষণ করবেন।

সর্বপ্রথম আপনারা যে কোম্পানির বিদ্যুৎ ব্যবহার করেন তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট ভিজিট করুন। সেখান থেকে লোডশেডিং সিডিউল নামে অপশনে প্রবেশ করূন। এখন আপনাদের এলাকার লোডশেডিং সিডিউল ডাউনলোড করে নিন। সবাইকে শেয়ার করে জানিয়ে দিন আপনাদের এলাকায় কখন লোডশেডিং হবে। বাংলাদেশের সকল জেলা ও উপজেলার বিদ্যুৎ না থাকার সময়সূচী শেয়ার করুন সবার সাথে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.